ছাতকে হামলায় আহত ব্যক্তির মৃত্যু, নারী আটক

ছাতকে প্রতিপক্ষের হামলায় গুরুতর আহত হওয়ার ৬দিন পর মারা গেছেন রাকিদ আলী (৫৫)। সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত বৃহস্পতিবার রাতে তিনি মারা যান। নিহত রাকিদ আলী উপজেলার চরমহল্লা ইউনিয়নের কামরাঙ্গীচর গ্রামের কলমদর আলীর পুত্র।

স্থানীয় ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, গ্রামের কলমদর আলীর পুত্র রাকিদ আলী ও একলাছ আলীর মধ্যে দীর্ঘ দিন থেকে বাড়ীর ভূমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল । সেই বিরোধের জের ধরে একলাছ আলী গত ২৪ ফেব্রুয়ারি সকালে একলাছ আলী দলবল নিয়ে রাকিদ আলীর উপর অতর্কিত হামলা চালায়। হামলায় রাকিদ আলী গুরুতর আহত হন। তাকে দ্রুত ভর্তি করা হয় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপালে।

সেখানে ৬দিন চিকিৎসারত অবস্থায় থাকার পর গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তার মৃত্যু হয়। হামলার ঘটনায় গুরুতর আহত হন রাকিদ আলীর মেয়ের জামাই নিজামুর রহমান।

এ ঘটনায় নিহতের ভাই বাদি হয়ে ছাতক থানায় ৭জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন । জাউয়া বাজার তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ গত বৃহস্পতিবার রাত ১১টা কামরাঙ্গীচর গ্রামে অভিযান চালিয়ে ঘটানার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে আনোয়ারা বেগম (৩২) নামের এক নারীকে আটক করে। তিনি একই গ্রামের আলমাছ আলীর স্ত্রী ।

জাউয়া বাজজার পুলিশতদন্ত কেন্দ্রের ইনচাার্জ আবু আফছার ভূইয়া জানান, এ ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার এজাহারভূক্ত এক আসামিকে অভিযান চালিয়ে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

শেয়ার করুন